বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৪৩ পূর্বাহ্ন

হাটহাজারীতে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে গুরুতর আহত ইমন আর নেই!

হাটহাজারীতে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে গুরুতর আহত ইমন আর নেই!

ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মো.আলাউদ্দীনঃ
হাটহাজারীতে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে দগ্ধ হয়ে তিন তলা থেকে নিচে পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হওয়া ইমন আর নেই।

সোমবার(৩০ নভেম্বর)উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নেওয়ার পথে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে ২০ বছর বয়সী যুবক ইমন।

সূত্রে জানা যায়, হাটহাজারী পৌরসভার বাসস্টেশন এলাকায় কলা বাগান আলিফ হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সামনে সোমবার সকাল ১১টার দিকে ওই এলাকার গাউছিয়া মার্কেটে “ক্লাসিক থাই এ্যালুমিনিয়াম এন্ড এস.এস” নামক দোকানের কর্মচারী ইমন সাইন বোর্ড লাগানোর সময় বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে তিন তলা থেকে নিচে পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হয়। ঘটনার পর স্থানীয়রা গুরুতর আহত ইমনকে উদ্ধার করে দ্রুত স্থানীয় একটি হাসপাতালে এবং অবস্থার অবনতি হলে পরে চমেক হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। সেখানে ডাক্তারের পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিট হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। নিহত ইমন উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের শাহ আহম্মদ বাড়ীর সিএনজি চালক জগির আহম্মদের পুত্র। নিহতের চাচাতো ভাই নাজিম জানান, ইমনকে ঢাকায় নেওয়ার পথে কুমিল্লায় মৃত্যু হলে সেখান থেকে পুনরায় তাকে বাড়ীতে নিয়ে আসা হয়।

স্থানীয়দের অভিযোগ, ১১ ও ৩৩ হাজার বিদ্যুৎ লাইন ঘেষেঁ ওই ভবনটি নির্মাণ করা হয়েছে। গাউছিয়া মার্কেট ও আলিফ হসপিটালের সামনে ইসহাক কমপ্লেক্স,হোসেন মার্কেট এবং লাল বিল্ডিংসহ আশে পাশের ভবন গুলো নিয়ম নীতির কোন তোয়াক্কা না করেই মনগড়া অপরিকল্পিতভাবে ভবন নিমার্ণ করার কারণে বার বার এমন দুর্ঘটনা ঘটছে বলে জানান সচেতন মহল। গত বছরও একই অবস্থার লাল বিল্ডিংয়ে বেড়াতে আসা এক শিশু খেলতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে আহত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে পরে ঢাকা বার্ন ইউনিটে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছিলো। এবং তারও আগে কাজের মেয়ে ছাদ থেকে কাপড় নিতে গিয়ে আলিফ হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের এক তলা ছাদে ও হসপিটালের সামনে রাস্তার পশ্চিম পাশে হোসেন মার্কেটের মালিক মোঃ শাহজাহান সাইন বোর্ড লাগানোর সময় বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট মারা গিয়েছিলো। অপরিকল্পিত ভবন নিমার্ণ করার কারণে বার বার এমন দুর্ঘটনা ঘটার পরও এখনও পর্যন্ত যথাযত কর্তৃপক্ষ কার্যকরী কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। প্রশাসন দ্রুত কার্যকরী কোনো ব্যবস্থা না নিলে এভাবে বাড়তে থাকবে মৃত্যুর মিছিল এমন দাবী পৌরবাসীর।

এ ব্যাপারে গাউছিয়া মার্কেটের মালিক মো.আলমগীর’র কাছে জানতে একাধিক বার চেষ্টা করা হলেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

হাটহাজারী মডেল থানার ওসি মো.রফিকুল ইসলাম বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আহত হওয়া যুবকের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 1,008 total views,  1 views today

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© আইন আদালত প্রতিদিন। সর্বসত্ব সংরক্ষিত।
ডিজাইন ও ডেভেলপে Host R Web