শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪০ পূর্বাহ্ন

সুপ্রীম কোর্টের ক্যান্টিনে গরুর মাংসর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন করলেন আইনজীবী : হাসান শাহরিয়ার

সুপ্রীম কোর্টের ক্যান্টিনে গরুর মাংসর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন করলেন আইনজীবী : হাসান শাহরিয়ার

ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির অধীনস্থ সকল ক্যান্টিনে গরুর মাংস রান্না ও বিক্রয়ের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে আজ ২ জুন ২০২১ ইং তারিখে লিখিত আবেদন করলেন বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী খন্দকার হাসান শাহরিয়ার। বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও এটর্নী জেনারেল এডভোকেট আবু মোহাম্মদ আমিন উদ্দিন এবং বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল এর কাছে লিখিত আবেদনে এডভোকেট খন্দকার হাসান শাহরিয়ার বলেন, প্রাগৈতিহাসিক কাল থেকে মানুষ গরুর মাংস খেয়ে আসছে। রেড মিট হিসেবে গরুর মাংস অনেক স্বাদের এবং বাংলাদেশের জনগণের কাছে খুবই প্রিয় একটি খাবার। বাংলাদেশের মানুষ মাংসের মধ্যে গরুর মাংস খেতেই বেশি পছন্দ করেন। মানুষের শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় ৯টি পুষ্টি উপাদান আছে গরুর মাংসে। এগুলো হল প্রোটিন, জিঙ্ক, ভিটামিন বি টুয়েলভ, সেলেনিয়াম, ফসফরাস, নায়াসিন, ভিটামিন বি৬, আয়রন এবং রিবোফ্লাভিন। প্রোটিন শরীরের পেশি গঠনে ভূমিকা রাখে। জিঙ্ক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। ফসফরাস দাঁত ও হাড়ের শক্তি বাড়ায়। আয়রন শরীরের পেশিতে অক্সিজেন প্রবাহে সহায়তা করে। ‘ভিটামিন বি টুয়েলভ’ খাদ্য থেকে শক্তি যোগান দেয়। গরুর মাংসের ব্যাপক পুষ্টিগুণ ও প্রোটিন সরবরাহের কথা বিবেচনা করে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর “আধুনিক পদ্ধতিতে গরু হৃষ্টপুষ্ট করণ” প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

লিখিত আবেদন তিনি আরো লিখেন বৈশ্বিক খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) তথ্য বলছে, চলতি বছর বাংলাদেশে পালনকৃত গরুর সংখ্যা ২ কোটি ৪০ লাখেরও বেশি। শুধু তা-ই নয়, গবাদিপশুটি পালনে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে দ্বাদশ অবস্থানে রয়েছে। খাদ্য ও কৃষি সংস্থার প্রকাশিত তথ্য বলছে, সারা বিশ্বে ২০২০ সালে প্রায় ১৪৬ কোটি ৮০ লাখ গরু পালিত হয়েছে। এর মধ্যে ২১ কোটি ১৭ লাখ পালনের মাধ্যমে শীর্ষে রয়েছে ব্রাজিল। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারত ১৮ কোটি ৯০ লাখ, তৃতীয় অবস্থানে থাকা চীন ১১ কোটি ৩৫ লাখ, চতুর্থ অবস্থানে থাকা যুক্তরাষ্ট্র ৮ কোটি ৯২ লাখ এবং পঞ্চম অবস্থানে থাকা ইথিওপিয়ায় ৫ কোটি ৪০ লাখ গরু পালন করেছে। পৃথিবীতে যত গরুর মাংস রপ্তানি হয়, তার ১৬ শতাংশই ভারত থেকে রপ্তানি হয়। জাতিসংঘের অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থা, খাদ্য ও কৃষি সংস্থার করা একটি সমীক্ষা বলছে, গরুর মাংস সরবরাহকারী দেশের তালিকায় ভারত তিন নম্বরে। ব্রাজিল প্রথম ও অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। বাংলাদেশসহ বিশে^র কোন দেশে আইন করে গরুর মাংস খাওয়া নিষিদ্ধও করা হয়নি।

সর্বোপরি, কোন খাবার খাওয়া কিংবা না খাওয়া যেকোনো মানুষের ব্যক্তিগত ইচ্ছা ও রুচির বিষয়। স্বাস্থ্যগত কারণ কিংবা ধর্মীয় বা ব্যক্তিগত অপচ্ছন্দের কারণে কেউ গরুর মাংস নাও খেতে পারেন। কিন্তু তাই বলে ৯০% মুসলিম জনগণের দেশে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির অধীনস্থ সকল ক্যান্টিনে গরুর মাংস রান্না ও বিক্রয় হবে না এটি অত্যন্ত অমানবিক। বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সদস্যরা অত্যন্ত শারীরিক ও মানসিক পরিশ্রম করেন। তাই আইনজীবীদের পুষ্টি নিশ্চিত ও প্রোটিন সরবরাহের কথা বিবেচনা করে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির অধীনস্থ সকল ক্যান্টিনে গরুর মাংস রান্না ও বিক্রয় করা একান্তভাবে প্রয়োজন।

লিখিত আবেদনে এডভোকেট খন্দকার হাসান শাহরিয়ার অনতিবিলম্বে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির অধীনস্থ সকল ক্যান্টিনে গরুর মাংস রান্না ও বিক্রয়ের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য অনুরোধ করেছেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

 646 total views,  1 views today

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© আইন আদালত প্রতিদিন। সর্বসত্ব সংরক্ষিত।
ডিজাইন ও ডেভেলপে Host R Web