www.ainadalatprotidin.com
জানুয়ারি ২৪, ২০২১
সুন্দরবনের অদূরে লোকালয় থেকে মায়াবী হরিণ উদ্ধার করে বনে অবমুক্ত

সুন্দরবনের অদূরে লোকালয় থেকে মায়াবী হরিণ উদ্ধার করে বনে অবমুক্ত

ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ম.ম.রবি ডাকুয়া,বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ
সুন্দরবনের একটি মায়াবী হরিণ লোকালয় থেকে উদ্ধার করেছে বন বিভাগ। স্থানীয়দের সহযোগীতায় বন বিবাগের বন্যপ্রাণী সংরক্ষন টিম এ হরিণকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। আজ ৯ জানুয়ারী শনিবার দুপুরের দিকে বাঘের তাড়া খেয়ে আসা হরিনটি সুন্দরবনের সুতারখালী এলাকায় ঢুকে পড়লে সেখান থেকে বন বিভাগ ও এলাকাবাসীর সহযোগীতায় উদ্ধার করে ওয়াইল্ডটিম, ভিটিআরটি, সিপিজি, পরে পরে উদ্ধারকৃত হরিণটিকে সুন্দরবনে অবমুক্ত করা হয় বলে জানা গেছে।
সংশ্লিষ্ট বন বিভাগ জানায়, শনিবার দুপুরের দিকে সুন্দরবনের অদূরে সুতারখালী এলাকার গ্রামের পাশে সুন্দরবনের দলছুট একটি মায়া হরিন দেখতে পায় এলাকাবসীরা। এর পর পর স্থানীয়রা সুন্দরবন ও সুন্দরবনের বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে কাজে সংশ্লিষ্টদের কাছে খবর দিলে তৎক্ষনিক বন্যপ্রানী সংরক্ষন ওয়াইল্ডটিম ও ভিটিআরটি সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হয় এবং হরিণটিকে উদ্ধার করে। হরিনটি বন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হলে পরে ওয়াইল্ডটিম, বনবিভাগ, স্থানীয় বাসীন্দারা হরিনটি সুন্দরবনে অবমুক্ত করেন।
এ ব্যপারে বন্যপ্রানী সংরক্ষন টাইগার রেসপন্স টিমের টিম লিডার মুছা সানা জানান সুন্দরবন থেকে একটি হরিণ লোকালয় আসলে বন বিভাগসহ আমাদের টাইগারটিম ও ওয়াইল্ডটিমের সদস্যরা মিলে উদ্বার করে তাৎক্ষণিক সেটিকে আবার সুন্দরবনের গহিনে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। তবে ধারনা করা হচ্ছে, সুন্দরবনে বাঘের তাড়া খেয়ে নিরুপায় হয়ে লোকালয় ডুকে পড়েতে পারে হরিনটি।
স্থানীয়রা ধারনা করছে এটি কোন শিকারীর হাত থেকেও পালিয়ে আসতে পারে।কেননা উক্ত স্থানটি হরিণ শিকারের একটি জোন হিসেবে তারা চেনে।এ বিষয়ে বন বিভাগের সঠিক তদন্ত হওয়া দরকার বলে স্থানীয়রা মনে করেন।
সুন্দরবনের ওয়াইল্ডটিমের সদস্য ও সংশ্লিষ্টরা জানান, সুন্দরবন উপপূলে ও সুন্দরবনের আশপাশে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে তাদের ওয়াইল্ডটিম বিগত ২০০৭ সাল থেকে এ যাবৎ কাজ চলিয়ে আসছে, এরই ধারাবাহিকতায় বন্যপ্রানী ধরা বা পাচারের কথা শুনলেই দ্রুত সেখানে পৌছা সহ ঘটনাস্থল থেকে তারা বন্যপ্রাণী উদ্ধার প্রাণীদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা সহ সুশ্রসা দিয়ে তাদের পুনরায় বনে অবমুক্ত করা হয়।যা তারা নিয়মিত করে আসছে।

 5,031 total views,  2 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *