শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৯:২৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
সীতাকুণ্ড ব্লাড ডোনেট গ্রুপের সপ্তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও স্বেচ্ছাসেবী মিলন মেলা সম্পন্ন যাত্রী কল্যাণ সমিতি হালিশহর থানা আহ্বায়ক কমিটি গঠিত ইন্টারন্যাশনাল হিউম্যান রাইটস কমিশন, বাংলাদেশ শাখার করোনা সচেতনতায় টিশার্ট ও মাস্ক বিতরণ অব্যাহত বিশ্ব নবী (সাঃ) কে অবমাননা করার প্রতিবাদে কলাপাড়ায় বিক্ষোভ ও সমাবেশ ॥ সরকারী জায়গায় ঘর তুলতে গিয়ে বাঁধার মুখে কলাপাড়া হাসপতালের জহির কলাপাড়া সাংবাদিক ফোরামে দেয়াল ঘড়ি দিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নিজাম উদ্দিন কলাপাড়ায় ইউপি সদস্য হত্যা মামলার তিন আসামী গ্রেপ্তার কলাপাড়া পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা হাসিব গাজীর প্রার্থীতা ঘোষণা কলাপাড়ার লালুয়ায় সাবেক এক ইউপি সদস্য’র রহস্যজনক মৃত্যু ঐতিহ্যবাহী চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যক্রম সফটওয়ার ডিজিটালাইশনের শুভ উদ্বোধন
বাঁশখালীতে আইনজীবীর উপর হামল, আদালতে মামল, তদন্তে পিবিআই

বাঁশখালীতে আইনজীবীর উপর হামল, আদালতে মামল, তদন্তে পিবিআই

বাঁশখালী প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের বাঁশখালীর পৌরসভা এলাকায় জায়গায় জমি ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতি ও বঙ্গবন্ধু আইনজীবী সমিতির সদস্য অ্যাডভোকেট মঞ্জুর আলম এর উপর হামলা করেছে একদল চিহ্নিত দূর্বৃত্তরা। আহত অ্যাডভোকেট মঞ্জুরুল আলম এ বিষয়ে পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আজগর হোসেন সহ ৯জন কে বিবাদী করে বাঁশখালী সিনিয়র চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন। বিবরণে জানা যায়, গত ১৯/৮/২০২০ইং তারিখে বাঁশখালীর সিনিয়র চীপ জুড়িসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সি.আর মামলা নং- ৩৯৫/২০২০ দায়ের করা হয়েছে। মামলাটি ম্যাজিস্ট্রেট মঈনুল ইসলাম আমলে নিয়ে তদন্ত করার জন্য পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

ঘটনার বিবরণীতে জানা যায়, গত ৩১/৮/২০২০ইং তারিখের রোজ শুক্রবার দুপুর ২.০০ টায় বাঁশখালীর উত্তর জলদী, চুম্মা পাড়া,দোকানের পিছনে (পৌরসভা এলাকা) আসামী জিয়া উদ্দিন সহ একদল চিহ্নিত দূর্বৃত্তরা অ্যাডভোকেট মঞ্জুর আলম কে জুমার নামাজ হতে বের হলে অপহরণ করে নিয়ে গিয়ে চাঁদাদাবি করে,অতঃপর বাদীর সাথে থাকা টাকা পয়সা ছিনিয়ে নেয়। এবং শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মারাত্মকভাবে জখম করে। অবশেষে বাদীর চিৎকার চেচামিতে স্হানীয়রা তাকে উদ্ধার করে। পরবর্তীতে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা শেষে আহত অ্যাডভোকেট মঞ্জুর আলম বাদী হয়ে বাঁশখালী সিনিয়র চীপ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সি.আর মামলা নং- ৩৯৫/২০২০ দায়ের করে। মামলায় ধারা দেয়া হয়েছে
৩০৭/৩২৩/৩৮৫/৫০৬(২)/৩৭৯/৩৬৫/৩৪ দন্ড বিধি।
এ বিষয়ে আদালতের বেঞ্চ সহকারী সেলিম উদ্দিন হেলো বাঁশখালী কে বলেন,একজন অ্যাডভোকেট কাউন্সিলর সহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআই কে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।’

অ্যাডভোকেট মঞ্জুর আলম বলেন, ৩১/৭/২০ জুমার নামাযের পরে মসজিদ থেকে বের হওয়ার পর জিয়াউদ্দিন এবং পৌরসভা এলাকার কাউন্সিলর আজগর হোসেন সহ রফিক, ওসমান, জাকের হোসেন, কালু, খোরশেদ, আমিন,জামাল, নুরনবী সহ আরো ২০/২৫ এডভোকেট মনজুর আলম কে অপহরণ করে নিয়ে যায়। নিয়ে যাওয়া স্থানে আগে থেকে দা, কিরিচ নিয়ে দাড়িয়ে থাকতে দেখি। তারা ৪/৫ জনে তার গলায়, পেটে, বুকে মাথায় চুরি ধরে তাদের পূর্বের দাবীকৃত ২ লক্ষ টাকা চাদা দিতে বলে। আর বাকি ১০/১২ জনে আমাকে ইট, লোহার রড় দিয়ে মারতে থাকে। কাউন্সিলর আজগর হোসেন নিজে প্রায় ২০/২৫ মিনিট ধরে আমাকে ইট দিয়ে মারে। মেরে আমার নিকট থাকা ১ লক্ষ টাকা এবং আমার মোবাইল ফোন নিয়ে ফেলে। খবর পেয়ে পরে আমার ২ ভাই এসে কোন মতে উদ্ধার করতে গেলে তাদেরকে লোহার প্রায় আধা ঘণ্টা ধরে রড়, ইট দিয়ে মেরে রাস্তা থেকে নালায় ফেলে দেয়। তিনি আরও বলেন, এদের বিরুদ্ধে দুদক সহ সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে এরকম বহু অভিযোগ আছে। এদের ভয়ে এলাকায় কেউ কখনো মুখ খোলে না। বিভিন্ন গণমাধ্যমে তাদের কৃত কর্মের সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে ইতিপূর্বে।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সেক্রেটারী এ এইচ এম জিয়াউদ্দিন বলেন, এডভোকেট মনজুর আলম চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির একজন সক্রিয় সদস্য এবং অত্যন্ত সহজ সরল ছেলে। সে চট্টগ্রামে ভাড়া বাসায় থাকে। পবিত্র কোরবানীর ঈদ উপলক্ষে বাঁশখালী গ্রামের বাড়ীতে গেলে জুমার নামাজ পড়ে বের হলে একদল সন্ত্রাসীরা তাকে মারধর করেছে বলে শুনেছেন এবং ঘটনা সম্পর্কে বাঁশখালী থানার ওসির সাথে কথা বলেন ওসি ঘটনার বিষয়ে দেখবেন বলে জানিয়েছেন। কিন্তু পরে জানা যায়, থানায় মামলা নেয়া হয়নি। তিনি আরও জানান বর্তমানে সে আদালতে মামলা করেছে এবং পিবিআই কে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এবং সুষ্ঠু তদন্তের আশা করেন। অন্যথায় চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষ হতে জোরালো প্রতিবাদ করা হবে বলেও জানান। যেহেতু ভীকটীম একজন আইনজীবী সমিতির সদস্য।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ঘটনা সম্পর্কে অবগত একজন নাম গোপন করার সুত্রে বলেন, এডভোকেট মনজুর আলম এর উপর জায়গা জমির জের ধরে হামলা করা হয়েছে এটা সত্য। আর স্হানীয় আওয়ামীগের কিছু নেতা ঘটনাটি মীমাংসা করে দেয়ার কথা থাকলে ও মীমাংসা করা হয়নি। এ বিষয়ে বাঁশখালী পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আজগর হোসেন এর সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তিনি একটি কাজে আছেন ,পরে কথা বলবেন বলে ফোন কেটে দেন।

 171 total views,  3 views today

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© আইন আদালত প্রতিদিন। সর্বসত্ব সংরক্ষিত।
ডিজাইন ও ডেভেলপে Host R Web