রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন

পরিবারের উপর অভিমান করে গৃহবধূর আত্মহত্যা

পরিবারের উপর অভিমান করে গৃহবধূর আত্মহত্যা

Spread the love

রাহিয়ান জনি,কর্ণফুলি

শ্বশুর বা্ড়ির উপর রাগ করে আত্যহত্যার পথ বেছে নিল বিলকিস আক্তার(২৫)। গতকাল শুক্কুরবার(১৫ মে) কর্ণফুলী উপজেলার ধোপ্পোর ঘোড়ায় সকাল ৮টাই এই ঘটনাটি ঘটে। মোঃ মিন্টু ও বিলকিস আক্তার প্রমের সম্পর্ক করে ২০১৫ সালে বিবাহ বন্দনে আব্দ হয়। তাদের ঘরে পুটপটে ১টা ছেলে ও ১টা মেয়ে সন্তান জন্ম নেয়। গত বৃহস্পতিবার(১৪ মে) রাতে শাশুড়ি ও বউয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে কথা কাটাকাটি বেশি হলে শাশুড়ি(মিন্টুর মা) বিলকিস আক্তারের মাকে(মিন্টুর শাশুড়ি) ডাকে।পরে বিলকিস আক্তারের মা এসে বিলকিস আক্তারকে যথেষ্ট শাসন করে। তখন কয়েকটা থাপ্পড় দেয় বিলকিস আক্তারকে। ঝগড়া এবং বিচারের পর বিলকিস আক্তার তার ঘরে ঘুমাতে চলে যায়। বিলকিস আক্তার প্রতিদিন সকালে নামাজ পড়ে পানি আনতে যেত। কিন্তু শুক্রবার(১৫ মে) সকালে নামাজ না পড়ে ঘুমিয়ে ছিল। প্রতিদিনের মত পানি আনতে না যাওয়ায় শাশুড়ি(মিন্টুর মা) বউ থেকে কলসি খুঁজে নিয়ে পানির জন্য চলে যায়। শাশুড়ি পানি নিয়ে এসে দেখে বউ(বিলকিস আক্তার) সিলিং ফেনের সাথে ওরনা দিয়ে জুলে আত্যহত্যা করেছে। শাশুড়ি বউকে তাড়াতাড়ি বউকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতালের কর্মরত ডাক্তার থাকে মৃত্যু ঘোষণা করে। অত্য এলাকার বাসিন্দা চরপাথর ঘাটা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর আলমের সাথে কথা বললে তিনি জানান, এলাকায় ভালো একটা জুটি ছিল মিন্টু ও বিলকিস আক্তারের। বিলকিস আক্তার শশুর শাশুড়ি সাথে ভালো ছিল। তাদের পুটপুটে ২টা সন্তান আছে। এই ছোটকাটো কথা কাটাকাটির জন্য এতো বড় একটা সিদ্ধান্ত নিবেন বিলকিস আক্তার তা কেউ ভাবে নাই। আমার এলাকাবাসীরা সবাই মিন্টুর পরিবারকে শান্তনা দেওয়ার চেষ্টা করছি। ঘটনা শুনে পুলিশ ঘটনা স্থলে যাই এবং লাশ পোসমাটমের জন্য পাঠাই। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে কোন মামলা হয়নি জানিয়েছে পুলিশ।

 1,524 total views,  2 views today

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© আইন আদালত প্রতিদিন। সর্বসত্ব সংরক্ষিত।
ডিজাইন ও ডেভেলপে Host R Web