ঢাকা, ২৭শে সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৯ই সফর ১৪৪২ হিজরি

কলাপাড়ায় ইউপি চেয়ারম্যান শিমুর নামে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে দুই গ্রামের মানুষ ফুঁসে উঠেছে।

মোহাম্মদ জুলহাস মোল্লা

, কলাপাড়া প্রতিনিধি


প্রকাশিত: ৭:২৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০

কলাপাড়ায় ইউপি চেয়ারম্যান শিমুর নামে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে দুই গ্রামের মানুষ ফুঁসে উঠেছে।

মোঃ জুলহাস মোল্লা, কলাপাড়া।

 

কলাপাড়ার টিয়াখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ মশিউর রহমান শিমুর বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে দুই গ্রামের মানুষ জেগে উঠেছে।
মঙ্গলবার বিকেলে পূর্ব রজপাড়া ফোরলাইনের সড়কের দুই পাশে বৃষ্টি উপেক্ষা করে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।
এতে পূর্ব রজপাড়া ও অঞ্জুপাড়া গ্রামের দুই শতাধিক নারী-পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।
ওই মানববন্ধন ও বিক্ষোভে বক্তব্য রাখেন ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আলামিন মৃধা, স্থানীয় কৃষক তোফাজ্জল হোসেন, ব্যবসায়ী নিজাম চৌকিদার, শ্রমিক রশিদ খান, শহীদ মৃধা ও আওয়ামী লীগ নেতা ছত্তার গাজী।

স্থানীয় কৃষক তোফাজ্জল হোসেন বক্তব্যে বলেন, টিয়াখালী ইউনিয়নের স্বনামধন্য চেয়ারম্যান সৈয়দ মশিউর রহমান শিমু তিনি আমাদের সুখ দু:খে পাশে থাকেন, এবং এ গ্রামে বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত করেছেন নিজের প্রচেষ্টায়।
অথচ এ মহান মানুষটির নামে মিথ্যে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে একটি মহল, যে তিনি নাকি বিদ্যুতের নামে মোটা অংকের টাকা নিয়েছে। যাদের নাম উল্লেখ করেছে তারা আজ রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছে, দেখেন কার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে?
যারা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে তাদের শাস্তি দাবি জানান।
৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আলমিন মৃধা বক্তব্যে বলেন, কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন মহলে চেয়ারম্যান মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। চেয়ারম্যান বিদ্যুতের নামে মোটা অংকের টাকার উঠানোর অভিযোগে একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে যার মধ্যে আমার এলাকার অনেক লোকের নাম উল্লেখ করা হয়, অথচ চেয়ারম্যান বিরুদ্ধে আমার এলাকার কোন লোক অভিযোগ করেনি।
যারা আমার এই লোকদের নামে নাম দিয়ে চেয়ারম্যান বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে তাদের শাস্তি দাবি করেন তিনি।
শ্রমিক রশিদ খান বক্তব্যে তিনি বলেন, আমি এলাকার একজন শ্রমিক, শ্রমিকের কাজ করে আসছি, চেয়ারম্যান মশিউর রহমান শিমু আমাদের সুখ দুঃখে পাশে আছে এবং থাকবে অথচ তাকে আমাদের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করার জন্য একটি মহল অপপ্রচার চালাচ্ছে।
তিনি বিভিন্ন সময় আর্থিকভাবে বিভিন্ন সহযোগিতা করে থাকেন অথচ সে আমাদের কাছ থেকে বিদ্যুৎ নামে টাকা হয় এটি হাস্যকর। অপপ্রচারকারীদের আমরা ইউনিয়ন বাসী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কাছে বিচার চাই।
এ ব্যাপারে সৈয়দ মশিউর শিমু বলেন, দেশনেত্রী শেখ হাসিনার নৌকা নিয়ে এ ইউনিয়নের নৌকা মার্কায় নির্বাচন করে নির্বাচিত হয়েছি। নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এলাকার উন্নয়নের হিসেবে কাজ করে যাচ্ছি।
আমার এ উন্নয়ন মূলক কাজ অনেকের ভাল লাগে না। তারা বিভিন্ন মহলে আমার বিরুদ্ধে নালিশ করে যাচ্ছে। কিন্তু এই নালিশে আমাকে কিছু করতে পারবেনা কারণ আমার সাথে রয়েছে টিয়াখালীবাসী।

 855 total views,  3 views today